1. multicare.net@gmail.com : দৈনিক জামালপুরসংবাদ ২৪ :
রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ১০:৪৫ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
শিবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত পিংনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উৎযাপন বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ, বিএনপি নেতা ছাতকের সৈয়দ তিতুমীর আর নেই শিল্পকলা প্রতিযোগিতায় আবৃতিতে জেলার শ্রেষ্ঠ ছাতকের হৃদি তরফদার ছাতকে নোয়ারাই ইউনিয়নের লক্ষিবাউর এলাকায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের সরকারি সহযোগিতা কামনা উত্তর খুরমা ইউনিয়নের বন্যা আশ্রয় কেন্দ্রে ইউপি চেয়ারম্যান বিল্লাল আহমদের ত্রাণ বিতরণ কোম্পানিগঞ্জে বন্যা দুর্গতদের মধ্যে থানা পুলিশের ত্রাণ বিতরণ গোদাগাড়ীতে ট্রাকের ধাক্কায় এক যুবক নিহত । বন্যায় ভেঙ্গে যাওয়া ছাতক-সুনামগঞ্জ সড়কের আন্দারীগাঁও এলাকা পরিদর্শনে উপজেলা চেয়ারম্যান ছাতকে বিভিন্ন ইউনিয়নে বানবাসী মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন—মাহির চৌধুরী

টঙ্গীতে পরকীয়া প্রেমের জেরে ৩ সন্তানের স্ত্রীকে তালাক

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ৪ জুন, ২০২৪
  • ১১ বার পড়া হয়েছে

মাহবুবুর রহমান জিলানী গাজীপুর থেকে 

গাজীপুর সিটির ৫৩ নং ওয়ার্ড বড় দেওড়া সিংবাড়ি মসজিদ সংলগ্নে বাড়ি, প্রবাসী মোহাম্মদ দেলোয়ারের স্ত্রী সোনিয়া আক্তারের সাথে আমান মার্কেটের দোকানদার ইসমাইল হোসেন দীর্ঘদিন পরকীয়া প্রেমের জালে আবদ্ধ করে আনুমানিক ৮ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় দোকানদার ইসমাইল। পরে এলাকার মানুষের চোখে পড়ে, একসময় ইসমাইল সোনিয়াদের বাসায় অবাধে আসা-যাওয়া থাকলে, সোনিয়ার পরিবার এ নিয়ে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে বিচার দিলে তারা উভয়কে ডেকে বুঝিয়ে শুনিয়ে বিষয়টি ঠান্ডা করে। কিছুদিন পর ইসমাইল আবারো প্রবাসীর স্ত্রী সোনিয়ার সাথে অবাধে উঠাবসা শুরু করে, এমনকি ইসমাইলের মোটর সাইকেল চড়ে বিভিন্ন জায়গায় এবং বিভিন্ন বাসায় তারা সময় কাটায়। এ নিয়ে এলাকার মানুষের কানাঘষা শুরু হয় , কিছুদিন পরে সিংবাড়ি বাইতুল জান্নাত জামে মসজিদে দান বক্সে লিখিত একটি চিরকুট পাওয়া যায়, চিরকুটে লেখা থাকে। প্রবাসী দেলোয়ার ও সোনিয়ার সংসারটি বাঁচান। পরে এই বিষয়টি নিয়ে মসজিদ কমিটির লোকজন দোকানদার ইসমাইলকে ডেকে বুঝিয়ে শুনিয়ে বিষয়টি ঠান্ডা করে। কিছুদিন পর দোকানদার ইসমাইল পুনরায় পূর্বেরনে পরকীয়া প্রেম অব্যাহত রাখে। বড় দেওড়া সিং বাড়ি মোহাম্মদ গোলাম মাওলার বাড়ির ভাড়াটিয়া ইসমাইল হোসেন ও তার স্ত্রী, তিন সন্তান নিয়ে বসবাস করতেন, বেশ কিছুদিন আগে তার বড় মেয়ের বিয়ে হয়, পরে ছোট মেয়ে কে বাল্যবিবাহ দেয়, কিন্তু ছোট মেয়েটির সংসার টিকলো না, ডিভোর্স হয়ে গেল। পরে ইসমাইল তার স্ত্রী ও সন্তানদেরকে নিয়ে ছয়তলা ভাড়া বাসায় বসবাস করে। গত ১০ থেকে ১২ দিন আগে ইসমাইলের ছোট মেয়ে ও তার স্ত্রী বড় মেয়ের বাসায় যায়, এই সুযোগে ইসমাইল তার পরকীয়া প্রেমিকা সোনিয়াকে নিয়ে সময় কাটিয়ে বাসায় পাঠিয়ে দে,পরে ইসমাইলের স্ত্রী ও তার ডিভোর্স মেয়ে বাসায় আসে, তখন ইসমাইলের স্ত্রী বিছানা পরিষ্কার করতে গিয়ে পরকীয়া প্রেমিকার জিনিস পত্র পায়, তখনই বাসায় স্বামী-স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া মারামারি হয়। একপর্যায়ে ইসমাইল কোরআন শরিফ হাতে নিয়ে স্ত্রীকে তিন তালাক দেয়। পিতার অপকর্ম সইতে না পেরে, ইসমাইলের ডিভোর্সি মেয়ে বাসার ফ্যানের সাথে ফাঁসি দেয়, পরে পাশের বাসার লোকজন এসে মেয়েটির জীবন বাঁচায়। (অদৃশ্য শক্তির বলে) এতকিছু ঘটে যাওয়ার পরও ইসলাম সম্মত কোন কিছু নিয়ম-নীতি না মেনে স্ত্রী সন্তান নিয়ে দিব্যি একই বাসায় বসবাস করছে ইসমাইল !!
এ বিষয়টি নিয়ে সমাজে নানা শ্রেণী পেশা মানুষের মাজে লজ্জা খোব বিরাজমান, এলাকাবাসীর দাবি বিষয়টি সুস্থ তদন্ত করে দোষীদেরকে বিচারের আওতায় আনা হোক।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
Theme Customized BY LatestNews